আজ অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট

স্টাফ রিপোর্টারস্টাফ রিপোর্টার
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৪১ এএম, ১৩ জুন ২০১৯

অর্থমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বাজেট দিতে যাচ্ছেন আ হ ম মুস্তফা কামাল।  তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের এটা প্রথম বাজেট। একইসঙ্গে অর্থমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট এটি।

দেশের ৪৮তম বাজেট পেশ করবেন নতুন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন উপলক্ষে ইতোমধ্যে সকল প্রকার প্রস্তুতি শেষ করেছে সংসদ সচিবালয়।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের মুলতবি অধিবেশন শুরু হবে। এরপর নতুন অর্থবছরের জন্য ‘সমৃদ্ধির সোপানে বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের’ ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাবনা উত্থাপন করবেন পরিকল্পনা মন্ত্রীর পর নতুন সরকারের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণকারী আ হ ম মুস্তফা কামাল।বাজেট বক্তৃতা শেষে অর্থমন্ত্রী ‘অর্থ বিল-২০১৯’ সংসদে উত্থাপন করবেন। সরকারের আর্থিক প্রস্তাবাবলী কার্যকরণ এবং কতিপয় আইন সংশোধনের লক্ষ্যে এই বিলটি উত্থাপন করা হয়। সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিলটি আগামী ৩০ জুন পাস হবে। এর আগে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সরকার ও বিরোধী দলীয় সদস্যরা আলোচনা করবেন।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা জানান, সংসদ অধিবেশনের বাজেট উত্থাপনের আগে মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন করা হবে। প্রতি বছর বাজেট উত্থাপনের আগে রেওয়াজ অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এই বৈঠকটি সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রিপরিষদে অনুমোদন পাওয়ার পর বাজেট বিলে স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। এরপর সংসদে নিজ কক্ষে বসে বাজেট উপস্থাপন প্রত্যক্ষ করেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। এ সময় রাষ্ট্রপতি ছাড়াও প্রধান বিচারপতি, তিন বাহিনীর প্রধান, দেশী-বিদেশী কূটনীতিক ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। এজন্য সংসদ ভবন ও তার আশপাশের এলাকায় বাড়তি নিরাপত্তা নেয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অর্থমন্ত্রী ইতোমধ্যে বাজেটের সবকিছু চূড়ান্ত করেছেন। বাজেটের সব ডকুমেন্ট ছাপা হয়েছে। বাজেট বক্তৃতার বই ছাপার কাজ শেষ পর্যায়ে। আজ সকালেই তা পৌঁছে যাবে সংসদ সচিবালয়ে। অধিবেশন শুরুর আগে তা পৌঁছে দেয়া হবে এমপিদের টেবিলে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার থেকে এই অধিবেশন শুরু হয়েছে। যা আগামী ১১ জুলাই শেষ হবে। সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩০ জুন বাজেট পাসের পর এক সপ্তাহের বিরতি দিয়ে ৭ জুলাই থেকে পুনরায় বসবে। বিরোধী দল জাতীয় পার্টির পাশাপাশি বিএনপি ও গণফোরাম সদস্যদের অংশগ্রহণে পুরো অধিবেশন উত্তপ্ত থাকবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

জিএসনিউজ/এএওয়াই

আপনার মতামত লিখুন :